চট্টগ্রাম, , বৃহস্পতিবার, ১১ আগস্ট ২০২২

Alauddin Lohagara

টেকনাফে বিভিন্ন পয়েন্ট দিয়ে ৯২ পরিবারের ৪০৫ রোহিঙ্গার অনুপ্রবেশ

প্রকাশ: ২০১৮-০২-১৫ ১১:০৪:৩৯ || আপডেট: ২০১৮-০২-১৫ ১১:০৪:৩৯

নিউজ ডেস্ক :

কোনোভাবে থামছে না রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ। রোহিঙ্গাদের স্বদেশে ফেরত পাঠাতে প্রত্যাবাসন চুক্তি সইয়ের পর টেকনাফ উপজেলার বিভিন্ন পয়েন্ট দিয়ে বাংলাদেশে ঢুকছে। গত মঙ্গল ও বুধবার টেকনাফের সাবরাং ইউনিয়নের বিভিন্ন পয়েন্ট দিয়ে ৯২ পরিবারের ৪০৫ জন রোহিঙ্গা নতুন করে এসেছেন।

টেকনাফ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মো. জাহিদ হোসেন ছিদ্দিক পরিবর্তন ডটকমকে বলেন, প্রত্যাবাসন নিয়ে জল্পনা-কল্পনা চললেও বন্ধ হচ্ছে না রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ। অন্যদিকে কোনো না কোনো সীমান্ত দিয়ে রোহিঙ্গারা ঢুকছে বাংলাদেশে। বুধবার নতুন করে এসেছে ৪৪ পরিবারের মোট ২১৩ জন রোহিঙ্গা নারী-পুরুষ। নাফ নদীতে বিজিবির সতর্ক অবস্থায় থাকায় রোহিঙ্গারা এখন সাগর পাড়ি দিয়ে টেকনাফে আসছেন।

তিনি আরো বলেন, গত বছরের ২৫ আগস্টের পর থেকে মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্য থেকে রোহিঙ্গা পাচার, আশ্রয়, নৌকায় পারাপার ও রোহিঙ্গা দালালসহ প্রায় সাড়ে সাত শতাধিক দালালকে চিহ্নিত করে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড ও জরিমানা করা  হয়েছে।

টেকনাফের সাবরাং হারিয়াখালীর সেনাবাহিনী ত্রাণকেন্দ্রে দায়িত্বরত জেলা প্রশাসকের প্রতিনিধি ও টেকনাফ উপজেলার জ্যেষ্ঠ মৎস্য কর্মকর্তা মো. দেলোয়ার হোসেন বলেন, রোহিঙ্গারা বাংলাদেশে অনুপ্রবেশ করে প্রথমে সাবরাং হারিয়া সেনাবাহিনীর হারিয়াখালী ত্রাণকেন্দ্রে আসে। এরপর তাদেরকে চাল, ডাল, সুজি, চিনি, তেল, লবণের একটি করে বস্তা দিয়ে গাড়িতে করে টেকনাফের নয়াপাড়া রোহিঙ্গা শিবিরে পাঠানো হয়েছে। – পরিবর্তন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *