চট্টগ্রাম, , শুক্রবার, ১২ আগস্ট ২০২২

Alauddin Lohagara

মাদক নির্মূলে কোন ধরনের ছাড় দেওয়া হবে না : চট্টগ্রামে নব নিযুক্ত জেলা প্রশাসকের হুশিয়ারি

প্রকাশ: ২০১৮-০৩-১০ ২১:৩৩:৪৫ || আপডেট: ২০১৮-০৩-১০ ২১:৩৪:৪০

বীর কণ্ঠ ডেস্ক :

মাদক নির্মূলে কোন ধরনের ছাড় দেওয়া হবে না বলে হুশিয়ারি উচ্চারণ করেছেন চট্টগ্রামে নব নিযুক্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেন।

মাদকের সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য সরকারের উচ্চ পর্যায় থেকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে উপ-সচিবের দায়িত্বে ছিলাম। সেখান থেকে চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক করে পাঠানো হয়েছে। বর্তমান স্বরাষ্ট্র সচিব চট্টগ্রামে জেলা প্রশাসকের দায়িত্ব পালন করেছিলেন। তিনি আমাকের বলেছেন,‘তুমি চট্টগ্রাম যাচ্ছ। মাদকের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নিতে হবে।’

‘চট্টগ্রাম এসেই মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলেছি। মাদক নির্মূলে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। কোন ধরনের সমস্যা থাকলে তাও জানাতে বলেছি। বলেছি,‘মাদকের বিরুদ্ধে আমাদের জিরো টলারেন্স।’

শনিবার দুপুরে চট্টগ্রাম সার্কিট হাউজে জেলার সার্বিক উন্নয়ন বিষয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আয়োজিত মত বিনিময় সভায় এসব কথা বলেন নতুন জেলা প্রশাসক। সভায় সাংবাদিকরা নগরে মাদক, সন্ত্রাস, পাহাড় কাটা, সরকারি বিদ্যালয় সংকট, কর্ণফুলী নদী দখলসহ নানা সমস্যার কথা তুলে ধরেন। সাংবাদিকরা কর্ণফুলী নদীর অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের দাবি জানান।

এসময় জেলা প্রশাসক কর্ণফুলী নদীর দুই তীরে থাকা অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে কার্যক্রম শুরুর আশ্বাস দিয়ে বলেন, অতীতে এখানে দায়িত্ব পালনকালে (অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক পদে) কর্ণফুলীর দুই তীরে দুই হাজার ২১২টি অবৈধ স্থাপনা চিহ্নিত করেছিলাম।

কিছু সরকারি ও জাতীয় গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা বাদে বাকিগুলো উচ্ছেদের অনুমতি দিয়েছেন হাইকোর্ট। আমি সরকারের উচ্চ পর্যায়ে যোগাযোগ করব। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব উচ্ছেদের ব্যবস্থা করব।

স্কুল শিক্ষার্থীরাও এখন মাদকে আসক্ত হয়ে পড়েছে জানালে জেলা প্রশাসক বলেন, স্কুলে স্কুলে অভিযান পরিচালনা করবো। পাশাপাশি সচেতনতা বাড়াতে মতবিনিময় করবো।

ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা আবারও শুরু করবেন জানিয়ে তিনি বলেন, নগরীতে ভ্রাম্যমাণ আদালত বন্ধ রয়েছে কেন জানতে চাইলে আমার অফিসাররা সন্তোষজনক কোন উত্তর দিতে পারেননি। বিষয়টি আমি গুরুত্ব দিয়ে দেখবো।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে আতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. হাবিবুর রহমান, উপ-পরিচালক (স্থানীয় সরকার) ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ মোমিনুর রশিদ, বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয়ের সিনিয়র সহকারী কমিশনার মো. রুহুল আমীন উপস্থিত ছিলেন।- বাংলানিউজ

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *