চট্টগ্রাম, , বৃহস্পতিবার, ৩০ জুন ২০২২

admin

রাঙ্গুনিয়ায় ৪ ব্যবসায়িকে জিম্মী করে টাকা ছিনতাই :যুবলীগের সাবেক সহ-সভাপতিসহ ২ জন আটক

প্রকাশ: ২০১৮-০৮-১৩ ০০:৫২:১০ || আপডেট: ২০১৮-০৮-১৩ ০০:৫২:১০

রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধি :

চট্টগ্রাম-কাপ্তাই সড়কে স্ক্র্যাপ ভর্তি একটি ট্র্যাক থামিয়ে ৪ জন ব্যবসায়িকে জোর পূর্বক জিম্মী করে তিন লাখ টাকা ও ছয়টি মোবাইল ফোন ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলার রাজ¯’লী উপজেলার বাঙ্গাল হালিয়া বাজারের পাইকারি ডিম ব্যবসায়ি মো. জহির (৩৮), স্ক্র্যাপ ব্যবসায়ি জুয়েল খাঁন (২২) দুলাল খাঁন (৪৫), সিলভার ব্যবসায়ি মো. হাছান (১৮) দোকানের কেনাকাটা করার জন্য এসময় ট্র্যাকযোগে চট্টগ্রাম শহরে যা”িছলেন। গতকাল রোববার (১২ আগস্ট) সকাল ১০ টায় চট্টগ্রাম কাপ্তাই সড়কের রাঙ্গুনিয়া হরিণ গেইট এলাকায় ছিনতাইয়ের এই ঘটনা ঘটে। রাঙ্গুনিয়া উপজেলা যুবলীগের সাবেক সহসভাপতি আল হেলাল পুতুল সিকদারের রাঙ্গুনিয়া থানা সংলগ্ন অফিস থেকে জিম্মী চার ব্যবসায়িকে রাঙ্গুনিয়া থানার এসআই মোহাম্মদ হোসেন ও পিযুষ সিংহ ঘটনার প্রায় চার ঘন্টা পর অভিযান চালিয়ে উদ্ধার করেছেন। সেখানে তাদের আটকে রেখে বেধড়ক মারধর করা হয় এবং আরো টাকা আদায়ের জন্য চাপ দি”িছলেন বলে ব্যবসায়িরা জানান। এসময় দূর্বৃত্তরা ইলেক্ট্রিক প্লাস দিয়ে একজনের পায়ের নখ তুলে নেন। পুতুল সিকদার রাঙ্গুনিয়ার সৈয়দবাড়ি গ্রামের মৃত আশরাফুল আনাম প্রকাশ এনাম সিকদারের পুত্র। অভিযানে সেখান থেকে ছিনতাইকৃত দেড় লাখ টাকা ও মোবাইল উদ্ধার করেছে পুলিশ। এঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে পুলিশ আল হেলাল পুতুল সিকদার (৪০) ও তার সহযোগী আবু জাহেদ ইপন (৩৫) কে আটক করেছে। অপরাপর সহযোগীদের ধরতে পুলিশ অভিযান চালা”েছ বলে জানিয়েছেন। সেখান থেকে পুলিশ কয়েকটি ছোরা, লাঠিসোটা, লোহার রড, ইলেক্ট্রিক প্লাস ও সিসি ক্যামেরার হার্ড ডিক্স উদ্ধার করেছেন। পুতুল সিকদার উপজেলা যুবলীগের গত কমিটির সহসভাপতি ছিলেন বলে বিগত কমিটির সাধারন সম্পাদক শেখর বিশ্বাস নিশ্চিত করেছেন।

বাঙ্গাল হালিয়া বাজারের পাইকারি ডিম ব্যবসায়ি মো. জহির জানান, তারা চার ব্যবসায়ি রোববার সকালে বাজারের স্ক্র্যাপ ব্যবসায়ি দুলাল খাঁনের স্ক্র্যাপ ভর্তি ট্র্যাকে চড়ে চট্টগ্রাম শহরে যা”িছলেন মালামাল ক্রয়ের জন্য। ট্র্যাকটি রাঙ্গুনিয়ার মরিয়মনগর চৌমুহনী বাজার অতিক্রম করলে দুটি মোটর সাইকেল আরোহী চার যুবক ট্র্যাকটি অনুসরণ করে হরিণ গেইট এলাকায় গিয়ে চালককে থামাতে বাধ্য করেন। এরপর দূর্বৃত্তরা আমাদের জোর পূর্বক নামিয়ে স্যারের অফিসে যেতে হবে বলে বাধ্য করেন। কোন স্যার জিজ্ঞাসা করলে গেলেই দেখবেন বলে আমরা চার ব্যবসায়ি, ট্র্যাক চালক ও হেলপারকে জোর করে একটি সিএনজি অটোরিক্সা ও মোটর সাইকেল যোগে রাঙ্গুনিয়া থানা সংলগ্ন পুতুল সিকদারের অফিসে নিয়ে যান। সেখানে বেধড়ক মারধর করে আমার কাছ থেকে ১ লাখ ৯২ হাজার ৬’শ টাকা, জুয়েল খাঁনের কাছ থেকে ৬০ হাজার টাকা, মো. হাছানের কাছ থেকে ৪০ হাজার টাকা কেড়ে নেন। সন্ত্রাসীরা মারধরের এক পর্যায়ে প্লাস দিয়ে  ট্র্যাক চালক মো. রানার পায়ের নখ তুলে ফেলেন। তাদেরকে জিম্মী করে রাখার ১৫ মিনিট পর পুতুল সিকদার অফিসে আসেন বলে তিনি জানান।

স্ক্র্যাপ ব্যবসায়ি দুলাল খাঁন জানান, আমাদের মারধর করে টাকা পয়সা ও মোবাইল নিয়ে ডিম ব্যবসায়ি জহির ও সিলভার ব্যবসায়ি হাছানকে আটকে রেখে ট্র্যাক ভর্তি স্ক্র্যাপ শহরে বিক্রি করে বিকাশে আরো টাকা পাঠানোর শর্তে ব্যবসায়ি জুয়েল খাঁন, ট্র্যাক চালক মো. রানা ও হেলপারসহ আমাকে ছেড়ে দেন। এরপর আমরা বের হয়ে কিছু দুরে গিয়ে অন্যের মোবাইল থেকে বাঙ্গাল হালিয়া বাজারে খবর পৌঁছালে পুলিশ গিয়ে জিম্মীদের উদ্ধার করেন।

বাঙ্গাল হালিয়া বাজার ব্যবসায়ি সমিতির সভাপতি শামসুল আলম বলেন, বাজারের ব্যবসায়িদের উপর সন্ত্রাসী ঘটনার খবর পেয়ে তাদের উদ্ধারে তৎপরতা চালায়। রাজ¯’লীর সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান থোয়াইচি খই মারমা পুলিশের একজন উর্দ্ধতন কর্মকর্তাকে ঘটনা জানিয়ে সহায়তা চাইলে তিনি রাঙ্গুনিয়া থানাকে তাদের উদ্ধারে ব্যব¯’া নিতে বলেন। খবর পেয়ে পুলিশ অভিযান চালান।

রাঙ্গুনিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ ইমতিয়াজ মো. আহসানুল কাদের ভুঁঞা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, খবর পেয়ে জিম্মী ব্যবসায়িদের উদ্ধার করা হয়েছে। পুতুল সিকদারের স্বীকারোক্তি অনুযায়ি তার অফিসের পেছন থেকে ছিনতাইকৃত দেড় লাখ টাকা ও মোবাইল উদ্ধার করে ব্যবসায়িদের নির্যাতনে ব্যবহৃত সরঞ্জাম ও সেখান থেকে সিসি ক্যামেরার হার্ডডিক্স জব্দ করা হয়েছে। ঘটনার সাথে জড়িত দু’জনকে আটক করা হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন বাকি টাকা ও অন্যান্য আসামীদের ধরতে পুলিশ তৎপর রয়েছে। এঘটনায় থানায় মামলা রুজু করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *