চট্টগ্রাম, , শুক্রবার, ২৩ আগস্ট ২০১৯

আবদুল হাকিম রানা পটিয়া প্রতিনিধি

পটিয়া চেয়ারম্যান পদে ৩, ভাইস চেয়ারম্যান ২ : তিমিরের মনোনয়ন বাতিল উচ্চ আদালতে স্থগিত! মাজেদা বিনা প্রতিদ্বন্ধীতায় জয়ের পথে

প্রকাশ: ২০১৯-০৩-০৭ ২২:৫০:১৮ || আপডেট: ২০১৯-০৩-০৭ ২২:৫০:১৮

আবদুল হাকিম রানা, বীর কন্ঠ : পটিয়া উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী তিমির বরণ চৌধুরীর মনোনয়ন বাতিল আদেশ স্থগিত করেছে মহামান্য হাইকোর্ট। বৃহস্পতিবার মহামান্য হাইকোর্টে তিমির বরণ চৌধুরীর রিট পিটিশন নং-২৬৯০/২০১৯ইং এবং আপিল ১৭/২০১৯ইং এর প্রেক্ষিতে বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের যৌথ বেঞ্চে শুনানী শেষে চট্টগ্রাম জেলা রির্টানিং অফিসারের দেওয়া মনোনয়ন বাতিল আদেশ স্থগিত করে এই আদেশ কেন অবৈধ ও বাতিল ঘোষনা করা হবে না মর্মে মহামান্য হাইকোর্ট রুল নিশি জারী করেন বলে সুপ্রীম কোর্টের এ্যাডভোকেট এএম আমিন উদ্দিন স্বাক্ষরিত লয়ার সার্টিফিকেট সূত্রে জানা যায়।

এদিকে, প্রত্যাহারের শেষ দিন বৃহস্পতিবার মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী সুমি দে সাথী মনোনয়ন ফরম প্রত্যাহার করে নেওয়ায় বিনা প্রতিদ্বন্ধীতায় নির্বাচনের পথে ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী মাজেদা বেগম শিরু। তবে চেয়ারম্যান প্রার্থী আওয়ামী লীগ মনোনীত দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মোতাহেরুল ইসলাম চৌধুরী, স্বতন্ত্র প্রার্থী আফরোজা বেগম জলি ও স্বতন্ত্র প্রার্থী মো. সাজ্জাদ হোসেন নির্বাচনী লড়াইয়ে ঠিকে রয়েছেন। ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী ছৈয়দ এয়ার মুহাম্মদ পেয়ারু ও দেশরত্ম পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি মো. সাহাবুদ্দিন’র আগামী ২৪ মার্চ অনুষ্ঠিতব্য উপজেলা নির্বাচনের প্রতিদ্বন্ধিতায় ঠিকে রয়েছেন। জানা যায়, তৃতীয় ধাপে আগামী ২৪ মার্চ অনুষ্ঠিতব্য উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ৩ জন, ভাইস চেয়ারম্যান পদে ৩ জন চূড়ান্ত লড়াইয়ে থাকলেও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান মাজেদা বেগম শিরু বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন।

প্রার্থীদের মনোনয়ন ফরম নিয়ে গত কয়েকদিন ধরে পটিয়ায় নানা নাটকীয়তার কথা ছড়িয়ে পড়লেও গতকাল একমাত্র মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী সুমি দে সাথী ছাড়া অন্য প্রার্থীতা প্রত্যাহারের মত ঘটনা ঘটেনি। তবে আলোচনায় এসেছেন ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী ও দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক তিমির বরণ চৌধুরীর হাইকোর্টে রিট পিটিশনের মাধ্যমে ভোটযুদ্ধে ঠিকে থাকার খবর। তিনি গতকাল গণমাধ্যমে জানিয়েছেন, জেলা রির্টানিং অফিসার তার মনোনয়ন ফরম বাতিল করলেও উচ্চ আদালতে রিট পিটিশন দায়ের করলে উচ্চ আদালত তা স্থগিত করেছেন। এখন তিনি (তিমির) নির্বাচন করতে আর কোন বাধা নেই। তবে অফিসিয়াললি কোনো কাগজপত্র নির্বাচন কমিশনে এখনো না পৌঁছায় নির্বাচন কমিশন ২ জন ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থীকেই তাদের বৈধ প্রার্থী হিসেবে গন্য করছেন বলে পটিয়া উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ছৈয়দ আবু ছাঈদ জানান। তিনি আরো জানান, প্রত্যাহারের শেষ দিনে শুধুমাত্র মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী সুমি দে সাথী মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নিয়েছেন।

ফলে বিনা প্রতিদ্বন্ধীতায় নির্বাচনের পথে মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী মাজেদা বেগম শিরু। তাছাড়া ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী তিমির বরণ চৌধুরীর মনোনয়ন বাতিল উচ্চ আদালতের মাধ্যমে আদেশ স্থগিত হয়েছে বলে শুনেছেন। তবে এখনো তিনি কোন ধরনের কাগজপত্র পাননি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *