চট্টগ্রাম, , শুক্রবার, ২৩ আগস্ট ২০১৯

শফকত হোসাইন চাটগামী বাঁশখালী প্রতিনিধি

বাঁশখালীতে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ফিশিং ট্রলারে আগুন, আটক ২

প্রকাশ: ২০১৯-০৩-১৮ ২৩:৩৮:৫২ || আপডেট: ২০১৯-০৩-১৮ ২৩:৩৮:৫২

শফকত হোসাইন চাটগামী, বাঁশখালী: বাঁশখালী উপজেলার শীলকূপ ইউনিয়নের মনকিচর গ্রামে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে রশিদ আহমদের মালিকানাধীন এফবি জেয়াছমিন নামে ফিশিং ট্রলার আগুন দিয়ে জ্বালিয়ে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় আজ (১৮ মার্চ) সোমবার দুপুরে বাঁশখালী থানা পুলিশ ঘটনার সাথে সম্পৃক্ত ২ জনকে আটক করেছে। এদিকে ফিশিং ট্রলারে অগ্নিসংযোগের ঘটনায় ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ ২০ লক্ষাধিক টাকা ছাড়িয়ে যাবে বলে জানিয়েছেন ইউপি সদস্য ছিদ্দিক আকবর বাহাদুর। ফিশিং ট্রলারে অগ্নিসংযোগের ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে ওসি মোঃ কামাল হোসেন বলেন, লিখিত অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে ২ জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে।

মামলার প্রেক্ষিতে অধিকতর তদন্ত ও ঘটনার সাথে সম্পৃক্ত প্রমাণিত হলে আটককৃতদের গ্রেপ্তার দেখানো হবে বলেও তিনি জানান। জানা গেছে, মনকিচর গ্রামের মৃত আলী হোছেনের পুত্র ফিশিং ট্রলার মালিক রশিদ আহমদের সাথে একই গ্রামের অন্য একটি ফিশিং ট্রলারের মাঝি আবদুল খালেকের সাথে গত ৪ দিন পূর্বে বাকবিতন্ডা হয়। বাকবিতন্ডা এক পর্যায়ে ফিশিং ট্রলার মালিক রশিদ আহমদ মাঝি আবদুল খালেককে থাপ্পড় মারে। সেই বিরোধকে কেন্দ্র করে গত শনিবার গভীর রাতে বঙ্গোপসাগরের খাটখালী মোহনার ফাঁড়ির মুখ ডকে নোঙর ফেলানো অবস্থায় এফবি জেয়াছমিন ফিশিং ট্রলারটিতে কেরোসিন তেল দিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয়। মুহুর্তের মধ্যে ফিশিং ট্রলারে থাকা সমস্ত মালামালসহ বোটের উর্ধ্বাংশ পুড়ে ছাই হয়ে যায়।

ফিশিং ট্রলার অগ্নিসংযোগের ঘটনায় মালিক রশিদ আহমদ বাদী হয়ে আজ (১৮ মার্চ) সোমবার ২ জনকে অভিযুক্ত করে এজাহার দায়ের করে। এজাহারের পরিপ্রেক্ষিতে বাঁশখালী থানা পুলিশ আবদুল খালেক (৩৮) ও আতিক উল্লাহ (২২) নামে তার অপর সহযোগীকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *