চট্টগ্রাম, , মঙ্গলবার, ২০ আগস্ট ২০১৯

অধীর বড়ুয়া বোয়ালখালী প্রতিনিধি

বোয়ালখালীতে জমে উঠেছে নিবার্চনী দৃশ্যপট : নির্বাচনের ৪ দিন পূর্বে পাল্টে গেছে এক স্বতন্ত্র প্রার্থীর প্রতীক!

প্রকাশ: ২০১৯-০৩-২১ ০০:১৮:৪৭ || আপডেট: ২০১৯-০৩-২১ ০০:১৮:৪৭

বোয়ালখালী প্রতিনিধি : বোয়ালখালীতে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ঠিক ৪ দিন পূর্বে পাল্টে গেছে চেয়ারম্যান পদের স্বতন্ত্র প্রার্থী এসএম নুরুল ইসলামের নির্বাচনী প্রতীক। তিনি এপর্যন্ত ছাতা প্রতীকে প্রচার প্রচারণা চালালেও ১৯ মার্চ থেকে ” দোয়াত কলম” প্রতীকে নতুন করে প্রচারণা শুরু করেছেন।

এ অনিচ্ছাকৃত প্রতীক পরিবর্তনের জন্য ভোটারদের কাছে দুঃখ প্রকাশ করে তিনি জানান, মনোনয়ন দাখিলের পর তার মনোনয়ন যাছাই বাছাইয়ে বাতিল করেন রির্টানিং কর্মকর্তা। এ ব্যাপারে উচ্চ আদালতের দ্বারস্থ হন তিনি। গত ১০ মার্চ আদালত তার মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করলে তিনি ছাতা প্রতীকে ভোট চেয়ে পোস্টার, ব্যানার, লিফলেট ছাপিয়ে ও গণসংযোগ করে নির্বাচনী প্রচার প্রচারণা শুরু করেন। নির্বাচনের ঠিক চারদিন আগে এ ভুল ধরা পড়ায় আবারো নতুন করে লিফলেট, ব্যানার, পোস্টার ছাপাতে হয়েছে তাকে। তার মনোনয়ন পত্রের আবেদনে তিনিই একমাত্র ছাতা প্রতীক বরাদ্দ চেয়েছিলেন বিধায় এই বিভ্রাট হয়েছে।

১৮ মার্চ সিনিয়র জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রির্টানিং কর্মকর্তার সাথে যোগযোগ করলে তিনি এ ভুলের বিষয়টি সংশোধন করে দেন। মহানগর শ্রমিক লীগ নেতা মুক্তিযোদ্ধা এসএম নুরুল ইসলাম বলেন, ‘ব্যালটে ছাতা প্রতীক নেই। ফলে এখন দোয়াত কলম প্রতীকে ভোট দেবেন ভোটাররা। ’ গত কয়েকদিন যাবৎ বোয়ালখালীর সবর্ত্র নিবাচর্নী দৃশ্যপট জমে উঠেছে। প্রতিটি প্রার্থী একাধিক গাড়ীবহ বিরামহীন গনসংযোগ করছেন। অলিগলিতে পোষ্টারে পোষ্টারে ভরপুর হয়ে পড়েছে। এবার বোয়ালখালীতে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগ মনোনীত প্রার্থী নুরুল আলম (নৌকা), জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী দিদারুল আলম ফজু (লাঙ্গল), স্বতস্ত্র প্রার্থী আবদুল কাদের সুজন (আনারস), সৈয়দুল আলম (মোটর সাইকেল) ও এসএম নুরুল ইসলাম (দোয়াত কলম) প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। ঘোষিত তফশীল অনুযায়ী ৫ম উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ৩য় ধাপে গত ৮ মার্চ প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হয়।

আগামী ২৪ মার্চ বোয়ালখালী উপজেলা পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *