চট্টগ্রাম, , মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯

admin

কচ্ছপিয়ায় বাল্য বিবাহ দেওয়ার দায়ে মা ও চাচাত ভাইয়ের ৬ মাসের জেল

প্রকাশ: ২০১৯-১০-১১ ২৩:৪৭:৪২ || আপডেট: ২০১৯-১০-১১ ২৩:৫০:০১

বিশেষ প্রতিনিধিঃ
রামুর কচ্ছপিয়া ইউনিয়নের হাইস্কুল পাড়াতে বাল্য বিবাহের দায়ে একটি বিয়ে বাড়িতে অভিযান চালিয়েছেন রামু উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) প্রনয় চাকমা।

শুক্রবার (১১ অক্টোবর) জোমার নামাজের আগে ইউএনও’র অভিযানের খবর পেয়ে একই এলাকা ছোট জামছড়ির মনিরুজ্জামানের পুত্র, বর সাকের উল্লাহ নব বধুকে রেখে পালিয়ে গেছে বলে, জানান প্রত্যক্ষদর্শীরা।

ইউএনও প্রনয় চাকমা জানান, ঐ এলাকার আবদুর রহিমের মেয়ে, আসমাউল হোসনা (১৪) কে বাল্য বিবাহ দিচ্ছে, এমন সংবাদের প্রেক্ষিতে ঐ বাড়িতে অভিযান চালিয়ে, ঘটনার সত্যতা পেয়ে বাল্য বিবাহ বন্ধ করে দেন তিনি।

স্থানীয় হাবিব জানান, পূর্ব নির্ধারিত সময় সুচি অনুযায়ী উল্লেখিত দু,পরিবার বিয়ে সমস্ত আয়োজন শেষ করে, যতারীতি বিয়ের আয়োজন করেন। এতে কনে পক্ষের প্রায় মেহমান খাওয়া দাওয়া শেষ করেন। দু, পরিবার কাছাকাছি হওয়ায় বরসহ তার পক্ষের লোকজনও হাজির হয় কনের বাড়িতে। এমন সময় গর্জনিয়া পুলিশ ফাঁড়ির এক দল সদস্য নিয়ে হাজির হয় ইউএনও রামু। এতেই পুরো বিয়ে বাড়ি ফাকাঁ হয়ে যায়।

ইউএনও প্রনয় চাকমা বলেন, ঐ বাল্য বিবাহটি বন্ধ করে দেওয়ার পরে, কনের মা, মিনারা বেগম ও কনের চাচাত ভাইকে বাল্য বিবাহে সহায়তার দায়ে ভ্রাম্যমান আদালত ৬ মাসের সাজা দিয়ে জেল হাজতে প্রেরণ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *