চট্টগ্রাম, , সোমবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১

admin

চকরিয়ার কালারমারছড়া ইউপি চেয়ারম্যান তারেকের মামলা প্রত্যাহার ও হয়রানি বন্ধ করতে হবে  

প্রকাশ: ২০১৭-১০-১৮ ০০:৩৮:৪৬ || আপডেট: ২০১৭-১০-১৮ ০০:৩৮:৪৬

 

চকরিয়া  আফিস :

চকরিয়া উপজেলা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এসোসিয়েশনের বর্ধিত সভা গতকাল মঙ্গলবার রাতে পৌরসভার বাটাখালীস্থ কোনাখালী ইউপি চেয়ারম্যান দিদারুল হক সিকদারের বাসভবনে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

 

এসোসিয়েশনের নবনির্বাচিত সভাপতি চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক চেয়ারম্যান গিয়াস উদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সংগঠনের নবনির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক মাতামুহুরী সাংগঠনিক উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী বাবলার সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন চকরিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ জাফর আলম।

 

উপস্থিত ছিলেন উপজেলা কৃষকলীগের সভাপতি ও চিরিঙ্গা ইউপি চেয়ারম্যান জসীম উদ্দিন, উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক ও সুরাজপুর-মানিকপুর ইউপি চেয়ারম্যান আজিমুল হক আজিম, মাতামুহুরী উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সাহারবিল ইউপি চেয়ারম্যান মহসিন বাবুল, বরইতলী ইউপি চেয়ারম্যান জালাল আহমদ সিকদার, বমুবিলছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান আবদুল মতবল, বদরখালী ইউপি চেয়ারম্যান খাইরুল বশর, হারবাং ইউপি চেয়ারম্যান মিরানুল ইসলাম, খুটাখালী ইউপি চেয়ারম্যান আবদুর রহমান, ডুলাহাজারা ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ নুরুল আমিন, লক্ষ্যারচর ইউপি চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তাফা কাইছার, কাকারা ইউপি চেয়ারম্যান ও চকরিয়া উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শওকত ওসমান, বিএমচর ইউপি চেয়ারম্যান এসএম জাহাংগীর আলম, কোনাখালী ইউপি চেয়ারম্যান দিদারুল হক সিকদার, ঢেমুশিয়া ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল আলম জিকু, পুর্ববড় ভেওলা ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ারুল আরিফ দুলাল, কৈয়ারবিল ইউপি চেয়ারম্যান মক্কী ইকবাল হোসেন প্রমুখ।

 

 

অনুষ্ঠিত সভায় বক্তারা অবিলম্বে মহেশখালী উপজেলার কালারমারছড়া ইউনিয়ন পরিষদের প্রয়াত চেয়ারম্যান ওসমান গণীর সুযোগ্য ছেলে পরিষদের বর্তমান নির্বাচিত চেয়ারম্যান তারেক বিন শরীফের বিরুদ্ধে দায়ের করা মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান। একই সাথে তাকে কোন ধরণের হয়রানি না করতে প্রশাসনের কাছে দাবি জানান। বক্তারা বলেন, এলাকার সার্বিক উন্নয়ন ও জনগনের মাঝে শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য কাজ করতে গিয়ে জনপ্রিয় চেয়ারম্যান ওসমান গনী নির্মমভাবে খুন হন। কালারমারছড়া ইউনিয়নবাসি বিগত নির্বাচনে ওসমান চেয়ারম্যানের সততাকে প্রাধান্য দিয়ে বিপুল ভোটে তাঁর ছেলে তারেককে চেয়ারম্যান নির্বাচিত করেছে।

 

সভায় উপজেলা ইউপি চেয়ারম্যান এসোসিয়েশনের নেতৃবৃন্দ বলেন, জনপ্রতিনিধিরা সরকারের অংশ। কোন জনপ্রতিনিধি সরকারের কোন সংস্থার কাজে বিরোধীতা বা বাঁধা দিতে পারেনা। ঘটনার দিন চেয়ারম্যান হিসেবে তারেক উত্তেজিত জনগনকে শান্ত করেছে। অথচ মামলায় তাকেসহ অনেক জনপ্রতিনিধিকে আসামি করা হয়েছে। এটি শুভ লক্ষন নয়। তাই সভা থেকে আমরা আহবান জানাই প্রশাসনের কাছে, আশা করি প্রশাসন নিরপেক্ষ তদন্তের মাধ্যমে জনপ্রিয় চেয়ারম্যান তারেককে মামলা থেকে অব্যাহতি দেবে এবং তাকে কোন ধরণের হয়রানি করবেনা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *