চট্টগ্রাম, , বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯

রফিকুল আলম ফটিকছড়ি প্রতিনিধি

বিশ্ব উম্মাহর সুখ-শান্তি কামনা করে আখেরী মোনাজাত : সৈয়দ মুজিবুল বশর আল হাচানী আল মাইজ ভান্ডারীর খোশরোজ শরীফে লাখো ভক্তের মিলন

প্রকাশ: ২০১৯-০৮-৩১ ২০:৩৯:৪৭ || আপডেট: ২০১৯-০৮-৩১ ২০:৪০:০০

রফিকুল আলম, ফটিকছড়ি :
মাইজভান্ডার দরবার শরীফের আধ্যত্মিক সাধক আওলাদে রাসুল (সাঃ) হযরত গাউছুল আজম সৈয়দ গোলামুর রহমান আল হাচানী আল মাইজভান্ডারী প্রকাশ বাবা ভান্ডারী (কঃ) কেবলা কাবার ঔরসজাত পুত্র-ত্বরিকায়ে মাইজভান্ডারীয়ার রুপকার ও নিশান বরদার আওলাদে রাসুল (সাঃ) হযরত গাউছে জামান শাহ ছুফী আলহাজ্ব মাওলানা ছৈয়দ শফিউল বশর আল-হাসানী আল মাইজভান্ডারী (কঃ) কেবলার পুত্র গাউছিয়া রহমান মঞ্জিলের সাজ্জাদানশীন মুর্শিদ রাহবারে ত্বরিকত,ওয়া পেশওয়ারে হাকিকত,আওলাদে রাসুল (সাঃ) শাহজাদায়ে গাউছুল আজম হযরত শাহ ছুফী আলহাজ্ব মাওলানা ছৈয়দ মুজিবুল বশর আল-হাসানী আল মাইজভান্ডারীর পবিত্র খোজরোশ শরীফ ৩১ আগষ্ট শনিবার চট্টগ্রামের ফটিকছড়ি উপজেলার মাইজভান্ডার দরবার শরীফের গাউছিয়া রহমান মঞ্জিলের উদ্যোগে মহা সমারোহে অনুষ্ঠিত হয়েছে।
এ উপলক্ষে গাউছিয়া রহমান মঞ্জিল ও অশেকানে মাইজভান্ডারী এসোসিয়েশনের উদ্যোগে বিভিন্ন কর্মসূচীর পালন করা হয়। খোশরোজ শরীফ উপলক্ষে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত হতে আশেকানে মাইজভান্ডারীর ভক্তবৃন্দদের ব্যাপক উপস্থিতি দেখা যায়। দেশের বিভিন্ন প্রান্ত হতে হাজারো ভক্ত অসংখ্য গাড়ী নিয়ে চট্টগ্রাম শহর দিয়ে ও ফেনী – রামগড় সড়কের ফটিকছড়ি-হেঁয়াকো সড়ক দিয়ে মাইজভান্ডার শরীফে সমবেত হয়। খোশরোজ শরীফের আসা ভক্তদের নাজিরহাট হতে মাইজভান্ডার শরীফ ভক্তদের যাতায়ত ছিল পরম আনন্দের। যানবাহনে এসে গাড়ী হতে নেমে হেটেঁ মাইজভান্ডার দরবার শরীফের গাউছিয়া রহমার মঞ্জিলে যাওয়ার সময় কোন ক্লান্তি নেই ভক্তদের মাঝে ! গতকাল সন্ধ্যায় খোজরোশ শরীফে লাখো ভক্তের মিলন ঘটে।
অপরদিকে চট্টগ্রাম-খাগড়াছড়ি সড়কের (নাজিরহাট অংশে), মাইজভান্ডার বিনা জুড়ী সড়ক ও বিনাজুড়ী হতে গহিরা ঁেয়াকো সড়কের দু’পাশে ভক্তদের হাজারো গাড়ীর ১৫/২০ কিলোমিটার জুড়ে সারি বদ্ধ লাইন ও সড়কের পাশে আলোকসজ্জা এসব দেখতে দেখতে কখন যে পথ শেষ হয়ে যাচ্ছে তা টের পাওয়া যায়নি ভক্তরা। আগত ভক্তরা গাউছিয়া রহমান মঞ্জিলের বর্তমান সাজ্জাদানশীন এর সাথে সু-শৃঙ্খল ভাবে সাক্ষাত করে বায়েত হয়ে মঞ্জিল হতে বাহির হয়ে মাইজভান্ডার দরবার শরীফের বিভিন্ন রওজায় গিয়ে কোরআন তেলওয়াত ও জিকির করে আল্লাহর নিকট অশ্রু সিগ্ধ দুই নয়নে দুই হাত তুলে প্রার্থনা করতে দেখা যায় । খোজরোশ শরীফ উপলক্ষে উপজেলা প্রশাসন আইন শৃঙ্খলা রক্ষার্থে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করে এবং ফটিকছড়ি থানা পুলিশ ও নাজিরহাট হাইওয়ে পুলিশ দায়িত্ব পালন করে। ফলে মাইজভান্ডার হতে নাজিরহাট সড়কে বড় ধরনের যানবাহন ছাড়া অন্যন্যা যানবাহন চলাচল ছিল স্বাভাবিক। সন্ধ্যায় গাউছিয়া রহমান মঞ্জিলের বিভিন্ন কর্মসূচী শেষে মাইজভান্ডার শাহী ময়দানে লাখো ভক্তের উপস্থিতিতে সকল উম্মার সুখ সমৃদ্ধি কামনা করে মুনাজাত পরিচালনা করেন, গাউছিয়া রহমান মঞ্জিলের সাজ্জাদানশীন হযরতুলহাজ্ব মাওলানা সৈয়দ মুজিবুল বশর আল-হাসানী আল মাইজভান্ডারী। মোনাজাতের আগে লাখো ভক্তের আল্লাহু আল্লাহু জিকিরে মসগুল ছিল। মোনাজাতের সময় সমগ্র মাইজভান্ডার শরীফে আগত ভক্তরা যে যেখানে ছিল সে খানে দাঁড়িয়ে ও বসে মোনাজাতে অংশ গ্রহন করতে দেখা যায়। এ সময় আওলাদে রাসুল(সাঃ) শাজ্জাদানশীন শাহাজাদা ছৈয়দ নুরুল বশর আল্-হাচানী আল্-মাইজভান্ডারী সহ অন্যান্য আওলাদ উপস্থিত ছিলেন। খোজরোশ শরীফ সুষ্ঠ ও সুন্দর ভাবে সম্পন্ন করার জন্য গাউছিয়া রহমান মঞ্জিলের পক্ষ থেকে সকলের নিকট কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *