চট্টগ্রাম, , মঙ্গলবার, ১ ডিসেম্বর ২০২০

admin

না ফেরার দেশে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম

প্রকাশ: ২০২০-০৯-২৭ ২১:১৯:২০ || আপডেট: ২০২০-০৯-২৭ ২১:১৯:২৬

বীর কণ্ঠ ডেস্ক|
অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম না ফেরার চলে গেছেন। রবিবার সন্ধ্যা ৭টা ২৫ মিনিটে তিনি মারা যান বলে তার ছেলে সুমন মাহবুব মিড়িয়াকে নিশ্চিত করেছেন।  

রাষ্ট্রের প্রধান আইন কর্মকর্তা ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন ছিলেন।
মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭১ বছর।

গত ৪ সেপ্টেম্বর জ্বর নিয়ে ঢাকা সিএমএইচে ভর্তি হন মাহবুবে আলম। সেখানে নমুনা পরীক্ষায় তার করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়ে।

চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১৮ সেপ্টেম্বর মাহবুবে আলমের শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটলে তাকে আইসিইউতে নেয়া হয়।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ মুক্ত হলেও এক সপ্তাহ আগে হঠাৎ তার শরীরিক অবস্থার অবনতি ঘটে।  

মাহবুবে আলম ২০০৯ সালের ১৩ জানুয়ারি থেকে অ্যাটর্নি জেনারেলের দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন। তিনি সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও সম্পাদক হিসেবে নির্বাচিত হয়েছিলেন।  তিনি ১৯৭৫ সালে হাই কোর্টে আইন পেশায় যুক্ত হন।

মাহবুবে আলমের জন্ম ১৯৪৯ সালের ১৭ ফেব্রুয়ারি মুন্সিগঞ্জের লৌহজং উপজেলার মৌছামান্দ্রা গ্রামে।

তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ১৯৬৮ সালে রাষ্ট্রবিজ্ঞানে অনার্স এবং ১৯৬৯ সালে লোক প্রশাসনে ডিগ্রি অর্জন করেন।

১৯৭২ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এলএলবি ডিগ্রি নেন তিনি।
ছাত্রজীবনে বাম আন্দোলনে যুক্ত থেকে পরে বাংলাদেশ যুব ইউনিয়নের সহসভাপতির দায়িত্ব পালন করেন মাহবুবে আলম।

অ্যাটর্নি জেনারেল হিসেবে সর্বোচ্চ আদালতে একাত্তরে মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলার বিচার, সংবিধানের পঞ্চম, সপ্তম, ত্রয়োদশ ও ষোড়শ সংশোধনী মামলা পরিচালনায় তিনি ভূমিকা রাখেন।  

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের হত্যাকাণ্ডের মামলায়ও যুক্ত ছিলেন মাহবুবে আলম। আলোচিত বিডিআর বিদ্রোহ হত্যা মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের প্রধান আইনজীবীর দায়িত্বেও ছিলেন তিনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *